আজানের ভলিউম কমাতে বলায় কারাদণ্ড

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৪:৪৪ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২৩, ২০১৮ | আপডেট: ৪:৪৪:অপরাহ্ণ, আগস্ট ২৩, ২০১৮

আজানের ভলিউম কমিয়ে দিতে বলায় ইন্দোনেশিয়ায় মেইলিয়ানা (৪৪) নামের এক নারীকে ১৮ মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন দেশটির আদালত। বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বী অভিযুক্ত ওই নারী ইন্দোনেশিয়ার সুমাত্রা প্রদেশের বাসিন্দা। এ ঘটনা তীব্র সমালোচনার জন্ম দিয়েছে।

ব্রিটিশ দৈনিক দ্য গার্ডিয়ানের প্রতিবেদনে বলা হয়, মেইলিয়ানার অপরাধ তিনি মসজিদে আজানের ভলিউম কমিয়ে দিতে বলেছিলেন। তবে মেইলিয়ানার এই অভিব্যক্তি ‘অন্য ধর্মের প্রতি বিদ্বেষের বহিঃপ্রকাশ’ আখ্যায়িত করে তার বিরুদ্ধে ব্লাসফেমি আইনের অধীন অভিযুক্ত করা হয়েছে।

নাধলাতুল উলামা (এনইউ) নামে সুন্নি মুসলিমদের একটি সংগঠনের আইন বিভাগের প্রধান রাকিবিন এমহাস। তিনি জানান, আমার বুঝে আসে না ‘আজান উচ্চস্বরে দেয়া হচ্ছে’-এই অভিব্যক্তি কীভাবে অন্য ধর্মের প্রতি বিদ্বেষ প্রমাণ করে।

তিনি ব্লাসফ্লেমি আইনের অপপ্রয়োগের তীব্র সমালোচনা করেন এবং মত প্রকাশের স্বাধীনতা নিশ্চিত করতে প্রযোজনীয় পদক্ষেপ নেয়ার জন্য সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহ্বান জানান।

গার্ডিয়ান বলছে, ইন্দোনেশিয়ায় সংখ্যালঘুদের ওপর ব্লাসফেমি আইন ইচ্ছামতো ব্যবহার করা হচ্ছে। আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল ইন্দোনেশিয়া আদালতের রায়কে ‘হাস্যকর’ বলে মন্তব্য করেছে।

তবে সুমাত্রা প্রদেশের একজন নারী আইনজীবী জানিয়েছেন, আদালতের এ রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করা যাবে।