কোহলিদের ‘কাটা ঘায়ে’ পাকিস্তানের ‘নুনের ছিটা’

টিবিটি টিবিটি

স্পোর্টস ডেস্ক

প্রকাশিত: ৫:২৯ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৬, ২০১৮ | আপডেট: ৫:৩০:অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৬, ২০১৮
বিরাট কোহলি। ফাইল ফটো।

ইংল্যান্ড সফরে স্বস্তিতে নেই ভারতীয় ক্রিকেট দল। পাঁচ ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্টে পরাজিত হওয়া ভারতীয় দল লর্ডসে দ্বিতীয় টেস্টে ইনিংস ও ১৫৯ রানে পরাজিত হয় ভারত।

শুধু তাই নয়! প্রথম টেস্টে এজবাস্টনে লড়াই করতে পারলেও বৃষ্টিবিঘ্নিত লর্ডস টেস্টে প্রত্যাশিত পারফর্ম করতে পারেনি বিরাট কোহলির নেতৃত্বাধীন ভারতীয় ক্রিকেট দল।

লর্ডসের প্রথম দিন বৃষ্টিতে ভেসে যায়, দ্বিতীয় দিনেও বৃষ্টির কারণে দিনের বেশির ভাগ সময় খেলা হয়নি। মাত্র ৩৫ ওভার খেলা মাঠে গড়ায়। বৃষ্টি বাগড়া না থাকায় তৃতীয় দিনে ভালোই খেলে স্বাগতিক ইংল্যান্ড। চতুর্থ দিনে বেশকিছু সময় বৃষ্টির কারণে খেলা বন্ধ ছিল।

লর্ডস টেস্টে তিন দিনে দুই দল মিলে খেলেছে ১৭০.৩ ওভার। প্রথম ইনিংসে ৩৫.২ ওভারে ১০৭ রানেই অলঅউট হয়ে যাওয়া ভারতের জবাবে স্বাগতিক ইংল্যান্ড তাদের প্রথম ইনিংসে ৮৮.১ ওভার খেলে ৭ উইকেটে ৩৯৬ রান নিয়ে ইনিংস ঘোষণা করে। ২৮৯ রানে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংসে ৪৭ ওভারে ১৩০ রানে অলআউট ভারত।

লর্ডসে লজ্জাজনক পরাজয়ের পর বিরাট কোহলি এবং ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের নিয়ে সমালোচনা ঝড় বয়ে যায়।

ইংল্যান্ড সফরে ভারতীয় দলের পারফরম্যান্স নিয়ে পাকিস্তান ক্রিকেট দলের অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ বলেন, আমি দুবার ইংল্যান্ড সফর করেছি এবং পাকিস্তান দুবারই (২০১৬ সাল এবং চলতি বছরের মে-জুনে) দল ভালো করেছে (সিরিজে ড্র করেছে)। আমার মতে এশিয়ার যে দলই ইংল্যান্ডে যায় তাদেরই কষ্ট হয়। ভারতও এর ব্যতিক্রম নয়, কারণ কন্ডিশন খুবই কঠিন।

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে মাঠের লড়াইয়ের নামার আগে ইংলিশ উইকেট এবং কন্ডিশনের সঙ্গে মানিয়ে নিতে সিরিজ শুরুর ২৫ দিন আগে ২০১৬ সালে ব্রিটিশ সফরে গিয়েছিল পাকিস্তান।

সেই স্মৃতি স্মরণ করে পাকিস্তান ক্রিকেট দলের অধিনায়ক বলেন, পাকিস্তানের প্রস্তুতি ভালো ছিল। আমার প্রথম সফরের কথা (২০১৬) যদি বলি, আমরা সিরিজের ২৫ দিন আগেই ইংল্যান্ডে গিয়েছিলাম। ১০ দিনের ক্যাম্প করেছি এবং এর পর দুটো প্রস্তুতি ম্যাচ খেলেছি-যেটা আমাদের অনেক সাহায্য করেছে।