‘নতুন বাজার, অংশীদার ও জোটে যুক্ত হয়ে চক্রান্তের জবাব দেয়া হবে’

টিবিটি টিবিটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ১:৫৮ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ১৩, ২০১৮ | আপডেট: ১:৫৮:পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ১৩, ২০১৮

তুরস্কের বিরুদ্ধে রাজনৈতিক ষড়যন্ত্রের কারণেই তুর্কি মুদ্রার লিরার দরপতন হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান। যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে চলমান সংকটকে অর্থনৈতিক যুদ্ধ আখ্যা দিয়ে তিনি বলেন, আঙ্কারা নতুন বাজার ও অংশিদার খুঁজবে।-খবর এএফপির।

মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটের (বিরুদ্ধে) লড়াইয়ের ধরন, রুশ ক্ষেপণাস্ত্র বিধ্বংসী ব্যবস্থাপনা কেনার বিষয়ে আঙ্কারার পরিকল্পনা ও ২০১৬ সালে এরদোগানবিরোধী অভ্যুত্থানচেষ্টাকারীদের শাস্তি নিয়ে ন্যাটোর দুই প্রভাবশালী সদস্য যুক্তরাষ্ট্র ও তুরস্কের মধ্যে সাম্প্রতিক বছরগুলোতে মনোমালিন্য চলছে।

শুক্রবার তুরস্কের স্টিল ও অ্যালুমিনিয়ামের ওপর যুক্তরাষ্ট্র দ্বিগুণ শুল্ক আরোপের ঘোষণা দেয়ার পর শক্তিশালী ডলারের বিপরীতে লিরার মূল্য রেকর্ড পরিমান ১৬ শতাংশ কমে গেছে।

সাপ্তাহিক বিরতির পরে সোমবার যখন ফরেন এক্সচেঞ্জ মার্কেট খোলা হবে, তখন সবার চোখ থাকবে লিরার ওপর। কিন্তু এরদোগান আভাস দিয়েছেন, যুক্তরাষ্ট্রের কাছে ছাড় চাওয়ার মেজাজের মধ্যে তিনি এখন নেই।

কৃষ্ণসাগর উপকূলীয় শহর ট্রাবজোনে ক্ষমতাসীন দলের সদস্যদের সমাবেশে তিনি বলেন, এমন কোনো চেষ্টা করা হলে সেটা অর্থনীতি থেকে রাজনীতি-সবকিছুতে আত্মসমর্পণের শামিল হবে। আমরা আবারও চক্রান্তের মুখোমুখি হয়েছি। আল্লাহর ইচ্ছায় সব সংকট কাটিয়ে উঠতে পারব।

এরদোগান বলেন, নতুন বাজার, অংশিদার ও জোটে যুক্ত হওয়ার মাধ্যমে যারা সারা বিশ্বের বিরুদ্ধে অর্থনৈতিক যুদ্ধে লিপ্ত রয়েছে এবং আমাদেরও তাতে অন্তর্ভুক্ত করেছে, তাদের জবাব দেয়া হবে।

তিনি বলেন, কেউ দরজা বন্ধ করে দিলে নতুন কেউ তা খুলে দেবে।